আজ ২৯শে জুলাই ‘বিশ্ব বাঘ দিবস’

আজ ২৯শে জুলাই ‘বিশ্ব বাঘ দিবস’। এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘বাঘ বাঁচাই, বাঁচাই বন, রক্ষা করি সুন্দরবন’। সর্বশেষ শুমারি অনুসারে, বিশ্বের মধ্যে বাঘ সংরক্ষণে ভারত বর্তমানে প্রথম স্থান অধিকার করেছে।

বিশ্ব বাঘ দিবস
বিশ্ব বাঘ দিবস ২০১৮

প্রতিবছর ২৯ শে জুলাই দিনটি বাঘ সংরক্ষণ সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে ‘বিশ্ব বাঘ দিবস’ বা ‘আন্তর্জাতিক বাঘ দিবস’ (International Tiger Day) রূপে পালন করা হয়।

২০১০ সালে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ শহরে বিশ্ব বাঘ সম্মেলন (টাইগার সামিট)-এ বিশ্ব বাঘ দিবস পালনের পরিকল্পনা গৃহীত হয়। বিশ্বে ভয়াবহভাবে বাঘের সংখ্যা কমে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে এই সম্মেলন থেকে প্রতি বছর এই দিনে আন্তর্জাতিক বাঘ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বিশ্বের বহু প্রাণী সংরক্ষণ প্রতিষ্ঠান বাঘ সুরক্ষায় কাজ করছে এবং এ লক্ষ্য অর্জনে প্রয়োজনীয় তহবিল সংগ্রহ করছে। আন্তর্জাতিক বাঘ দিবস পালনের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে বাঘের সুরক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন ও এর আবাসস্থল বৃদ্ধিকল্পে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করা এবং এই বাঘ রক্ষার আন্দোলনে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা।

বিশ্ব বাঘ দিবস
বিশ্ব বাঘ দিবস ২০১৮

WWF এর তথ্য অনুসারে, বর্তমানে সারা পৃথিবীর অরণ্যে মাত্র ৩৯০০+ বাঘ রয়েছে। পৃথিবীর সর্বাধিক সংখ্যক বাঘ রয়েছে ভারতে। বিশ শতকের শুরুর সময় থেকে সারা পৃথিবীর মোট বন্য বাঘের ৯৫% বিলুপ্ত হয়েছে। বাঘ রয়েছে বিশ্বের এমন ১৩টি দেশ ভারত, বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া, চীন, ভুটান, নেপাল, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, কম্বোডিয়া, লাওস, ভিয়েতনাম ও রাশিয়াতে বাঘ দিবস পালিত হয়। উল্লেখ্য, ভারত ও বাংলাদেশের জাতীয় পশু হল বাঘ (রয়েল বেঙ্গল টাইগার)।

-মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া।

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 404
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    404
    Shares

মন্তব্য করুন

error: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত