আজ বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ।। World Population Day 2018

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৮

আজ “বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস” (World Population Day)। প্রতিবছর 11 ই জুলাই রাষ্ট্রসংঘের উদ্যোগে সারা বিশ্বে ‘বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস’ পালিত হয়। এই বছর অর্থাৎ 2018 সালের “বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস” -এর থিম হলো “Family Planning is a Human Right”, অর্থাৎ ‘পরিকল্পিত পরিবার, সুরক্ষিত মানবাধিকার’

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৮
চিত্রঃ বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৮

বুমম্…. এক বিরাট বিস্ফোরণ, বিজ্ঞানের ভাষায় BIG BANG; ঘটনা আজকের নয় অনেক অনেক যুগ আগের। সেই মুহূর্তেই নাকি বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডের উৎপত্তির সূচনা হয়। এর পর কোটি কোটি বছর বিবর্তনের পথ পেরিয়ে সৌরজগৎ এবং তার অংশ হিসাবে পৃথিবীর উৎপত্তি। বর্তমান সময়কাল পর্যন্ত পৃথিবী হল মহাজগৎ এর ব্যতিক্রমী গ্রহ যেখানে জীবনের অস্তিত্ব রয়েছে, রয়েছে মানুষের মতো উন্নত জীব। মানুষ থেকে এসেছে জনসংখ্যার ধারণা যা সমসাময়িক কালে পৃথিবীর এক জটিলতর সামাজিক বিষয়। এই জনসংখ্যা একদিকে যেমন অর্থনীতির রূপকার অন্যদিকে তেমনি জনাধিক্য দুর্বল অর্থনীতির অন্যতম কারণ। বর্তমান বিশ্বে জনসংখ্যার পরিমাণ প্রায় 7,444,443,881 জন (US Census Bureau, 1st January 2018), কিন্তু তা স্থানিক বন্টনতার ভিত্তিতে বৈচিত্রময়। আবার জনসংখ্যার চাপ দিন দিন ক্রমশঃ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই অবস্থা থেকে মনুষ্যকূলকে সচেতন করতে এবং জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ ও মানোন্নয়ন এর লক্ষ্যে রাষ্ট্রসংঘের অন্যতম পরিকল্পনা বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালন।

আজ থেকে 21 বছর আগে 1987 সালের 11 ই জুলাই পৃথিবীর জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেতে পেতে পৌঁছায় 5 বিলিয়নে, এই সময় বিশ্ব ব্যাঙ্কের সিনিয়র জনসংখ্যা বিশারদ ছিলেন Dr.KC Zachariah এবং তিনিই প্রথম ‘World Population Day’ হিসাবে এই দিনটিকে পালনের প্রস্তাব আনে। এর দুই বছরের মাথায় United Nation Development Program -এর তত্বাবধানে 1989 সালের 11 ই জুলাই প্রথম ‘World Population Day’ পালিত হয় এবং সেই থেকেই আজকের দিনটি এক বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ দিন সমগ্র মানব সমাজের কাছে।

‘World Population Day’ পালনের নিমিত্তে বিভিন্ন বছর বিভিন্ন থিম বা বিষয়-সূচীর উপস্থাপন করা হয় UN দ্বারা। যেমনঃ

2000 সালে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের থিম ছিলো- “Saving Women’s Lives”.

2010 সালে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের থিম ছিলো- “Be Counted: Say What You Need”.

2017 সালে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের থিম ছিলো- “Family Planning: Empowering People, Developing Nations”.

আর 2018 সালে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের থিম হলো- “Family Planning is a Human Right” বা “পরিকল্পিত পরিবার, সুরক্ষিত মানবাধিকার”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে 1968 সালে অনুষ্ঠিত প্রথম International Conference on Human Rights এর 50 তম পূর্তিবর্ষ এবছর। আবার ঐ আন্তর্জাতিক সম্মেলনেই প্রথম ‘Family Planning’ এর সূচনা হয়। অর্থাৎ বর্তমান বছরের বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের থিম একেবারে যুক্তি সম্মত ভবে রাষ্ট্রসংঘ প্রবর্তন করেছে।

আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিশেষ দিন পালন করে থাকি নির্দিষ্ট লক্ষ্য সামনে রেখে। আজ এইরকম এক গুরুত্বপূর্ণ দিন এবং যা বর্তমান সময়ে প্রাসঙ্গিক। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার সত্যিই বিশ্বের এক আশু ভয়ংকরতার সূচক। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে না এলে সমগ্র বিশ্ব এক চরম ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাবে। হয়তো বা জনসংখ্যার চাপেই মানব সভ্যতার ধ্বংসের অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়াবে। আর এই পরিস্থিতির মোকাবিলা থেকে একমাত্র মুক্তির পথ ‘পরিবার পরিকল্পনা’। মানুষ সচেতন হয়ে পরিবারের ভিত্তি রচনা করলে জন্ম হারের কিছুটা পরিবর্তন সম্ভব এবং তা আগামী দিনের জন্য মঙ্গল সূচক। এখন দেখার বিষয় আজকের দিনে বিশ্ব বাসি কি শিক্ষা নেয়। নিয়ন্ত্রিত পরিবার যদি আমরা এখনো না গড়তে পারি তাহলে সুদীর্ঘ অতীতের মতো হয়তো আরেকবার বুমম্ …. শব্দে ধ্বংসের পথে মনুষ্য সভ্যতা যা জনসংখ্যা বিজ্ঞানের ভাষায় ‘জনসংখ্যা বিস্ফোরণ’ নামে পরিচিত।

লেখকঃ গোপাল মণ্ডল (সহকারী সম্পাদক, মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া)।
কপিরাইটঃ ©মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া।

Tag: বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস, বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস ২০১৮, World Population Day 2018

আরও পড়ুন “পশ্চিমবঙ্গ কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ২০১৭ ।। West Bengal Current Affairs 2017”

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 287
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    287
    Shares

Leave a Reply

মন্তব্য করুন

error: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত