আন্টার্কটিকায় খোঁজ মিলল পাঁচটি নতুন জীবাশ্ম জঙ্গল

মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া: বর্তমান সময়ে আন্টার্কটিকা পৃথিবীর সবচেয়ে প্রতিকূল পরিবেশযুক্ত অঞ্চল। এটা পৃথিবীর শীতলতম, শুষ্কতম মহাদেশ — যাকে বিশ্বের বৃহত্তম মরুভূমিও বলা হয়। কিন্তু আন্টার্কটিকা চিরকাল এমন ছিলনা। কয়েক শত মিলিয়ন বছর পূর্বে, গন্ডোয়ানার সাথে যুক্ত থাকার সময় আন্টার্কটিকাতেও ছিল সবুজের সমারোহ। কিন্তু পার্মিয়ান মহাবিনাশে পৃথিবীর ৯০% জীবপ্রজাতি বিলুপ্ত হয়ে যায়। কিন্তু এই মহাবিনাশের পিছনের প্রকৃত কারন আজও পুরোপুরি উন্মোচিত নয়। তাই ভূতত্ত্ববিদরা পুরাকালের অরণ্য সম্পর্কে বিশেষ গুরুত্বের সাথে অধ্যয়ন করেন।

২০১৭ সালের শেষদিকে এক গবেষকদল আন্টার্কটিকা অভিযান করেন। এই অভিযানে কলিনসন রিজ অঞ্চল থেকে প্রচুর পরিমাণে নতুন উদ্ভিদ জীবাশ্ম পাওয়া গেছে। গবেষকদলের নেতৃত্বের অন্যতম, উইসকনসিন – মিলাওকি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এরিক গুলব্রানসন জানান, “আমাদের লক্ষ্য ছিল এবারে পার্মিয়ান যুগের শেষদিকে এই অঞ্চলের জীবাশ্ম বাস্তুতন্ত্র সম্পর্কে খোঁজ করা। আমরা এখানে এবারে বেশকিছু জীবাশ্ম বাস্তুতন্ত্র দেখেছি, যার খোঁজ আগে কেউ পায়নি।”

এই গবেষকদলটি আন্টার্কটিকায় পাঁচটি নতুন জীবাশ্ম জঙ্গলের খোঁজ পেয়েছেন। জীবাশ্মভূত উদ্ভিদ গুলি দেখতে অনেকাংশে ইয়েলোস্টোন ন্যাশনাল পার্কের শিলাস্তরীভূত উদ্ভিদের মতোই। এই জীবাশ্ম জঙ্গলগুলির অস্তিত্ব পার্মিয়ান মহাবিনাশের আগে এবং পরেও ছিল। আশা করা যায়, এর ফলে পার্মিয়ান মহাবিনাশ ও তার পরবর্তী কালে পৃথিবীর জীববৈচিত্র্য সম্পর্কে আরও বিশদ তথ্য উঠে আসবে।

তথ্যসূত্রঃ- ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক
-অরিজিৎ সিংহ মহাপাত্র ।।

কপিরাইট: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া ।। 

এখান থেকে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Leave a Reply

error: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত