SLST GEOGRAPHY SAQ-3

Cartographic Techniques

1. কোনো মানচিত্রে অভিক্ষেপের সবচেয়ে মধ্যবর্তী দ্রাঘিমা রেখাকে বলে – Central Meridian .
2. NATMO এর পুরো নাম হল – National Atlas and Thematic Map Organisation .
3. ঢালের নতি মাপার যন্ত্রের নাম – ক্লাইনোমিটার ।
4. উপগ্রহ চিত্রের ক্ষুদ্রতম উপাদান হল – Pixel .
5. GIS কথাটির পুরো নাম হল – Geographical Information System .
6. Survey of India 1767 সালে স্থাপিত হয় । এই সংস্থার সদর দপ্তর দেরাদুনে অবস্থিত ।
7. ভারতীয় সিরিজের মানচিত্রগুলির R.F. = 1 : 10,00,000 ।
8. আন্তর্জাতিক সিরিজের মানচিত্রগুলিকে মিলিয়ন শিট বলে ।
9. পৃথিবীর দুটি গোলার্ধের মোট মিলিয়ন শিটের সংখ্যা হল 2222 টি ।
10. টপোশিটে সমোন্নতি রেখাগুলি 20 মিটার বা 10 মিটার ব্যবধানে টানা থাকে ।
11. টপোশিটে সূচক সংখ্যার সাহায্যে মানচিত্রটি সঠিক কোন অঞ্চলের তা জানা যায় ।
12. টপোশিটে সূচক সংখ্যা মানচিত্রের উত্তর – পূর্ব কোণে নির্দেশিত হয় ।
13. ভূবৈচিত্র্যসূচকমানচিত্রটি কোন রাজ্যের অন্তর্গত তা মানচিত্রের উত্তরভাগে নির্দেশিত হয় ।
আর কোন জেলার অন্তর্গত তা মানচিত্রের উত্তর – পশ্চিম অংশে দেখানো হয় ।
14. স্কেল ও R.F. মানচিত্রের দক্ষিণভাগে দেখানো থাকে ।
15. ভারতের টপোশিটে অক্ষাংশের মান উত্তরদিকে এবং দ্রাঘিমার মান পূর্বদিকে বৃদ্ধি পায় ।
16. টপোশিটে নদীর পাড়ে কোথাও কোথাও উচ্চতাসহ ‘r’ অক্ষরটি লেখা থাকে । এর অর্থ হল নদী পাড়ের উচ্চতাকে নির্দেশ করা ।
17. মানচিত্রে নদীর পাশে Ferry কথাটি লেখার অর্থ – ওই স্থানে খেয়াপারের বন্দোবস্ত আছে ।
18. টপোশিটে নিত্যবহ নদী নীল রং , অনিত্যবহ নদী কালো রং , বনভূমি বা গাছপালা সবুজ রং , জনবসতি ও সড়কপথ লাল রং , সমোন্নতি রেখা বাদামী রং দ্বারা নির্দেশ করা হয় ।

 

 Soil Geography

1. মাটি গঠনের হার দ্রুত লক্ষ করা যায় – উষ্ণ আর্দ্র জলবায়ুতে ।
2. পেডালফার মাটিতে বেশি পরিমাণে থাকে – অ্যালুমিনিয়াম ।
3. পেডালফার মাটি যে অঞ্চলে দেখা যায়, তা হল – আর্দ্র ।
4. অনুস্রাবণ বেশি হলে সৃষ্টি হয় – পেডালফার মাটি ।
5. বাষ্পীভবন বেশি হলে সৃষ্টি হয় – পেডোক্যাল মাটি ।
6. পিট বা বগ মাটি সৃষ্টি হয় – জলাভূমিতে ।
7. আবহবিকারের ফলে আলগা শিলাচূর্ণ হল – রেগোলিথ ।
8. পুষ্টিমৌলের ভাণ্ডার বলা হয় মাটির – B স্তরকে ।
9. 7th Approximation অনুযায়ী পৃথিবীর সমস্ত মৃত্তিকাকে – 12 টি ভাগে ভাগ করা হয় ।
10. ব্যাসল্ট শিলা থেকে সৃষ্ট মৃত্তিকা হল – কৃষ্ণমৃত্তিকা ।
11. মলিসল জাতীয় মৃত্তিকা হল – প্রেইরি ।
12. মাটির উল্লম্ব প্রস্থচ্ছেদকে বলে – মাটির পরিলেখ ।
13. ভূপৃষ্টের সমান্তরালে বিস্তৃত মাটির এক – একটি পুরু স্তরকে বলে – হোরাইজন ।
14. প্রশমিত বা নিরপেক্ষ মাটিতে pH -এর মান হয় 7 .
15. NPK একযোগে যে মৌল নামে পরিচিত তা হল – সংকটী মৌল ।
16. হার্ডপ্যান গঠিত হয় – পডসলাইজেশন প্রক্রিয়ায় ।
17. গ্লেইজেশান প্রক্রিয়ায় বেশি কার্যকারী হয় – বিজারণ ।
18. ভৌত শুষ্ক মৃত্তিকা বলা হয় – বালি মৃত্তিকাকে ।
19. মাটি ছাড়াই উদ্ভিদ জন্মানোর প্রক্রিয়াকে বলা হয় – হাইড্রোফনিক প্রক্রিয়া ।
20. ক্ষয়ের ফলে A স্তরের পরিবর্তে B অথবা C স্তর মাটির পরিলেখে প্রকাশিত হলে তাকে বলে – কর্তিত পরিলেখ ।

 

Biogeography

1. ভারতে জীববৈচিত্র্য আইন প্রণীত হয় – 2002 সালে ।
2. জাতীয় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইন প্রণীত হয় – 1972 সালে ।
3. কাজিরাঙ্গা জাতীয় উদ্যান অবস্থিত – অসমে ।
4. সম্পূর্ণরূপে বিলুপ্ত প্রাণী – এশিয়াটিক চিতা ।
5. বর্তমানে ভারতে মোট অভয়ারণ্যের সংখ্যা – 537 টি ।
6. ভারতে মোট বায়োস্ফিয়ার রিজার্ভের সংখ্যা – 18 টি ।
7. ভারতে বিলুপ্তপ্রায় স্তন্যপায়ী প্রাণীর সংখ্যা মোট – 81 টি ।
8. পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি জীববৈচিত্র্যের দেশ – ব্রাজিল ।
9. ভারতে প্রাপ্ত মোট পাখি প্রজাতির সংখ্যা – 1228 টি ।
10. বর্তমানে ভারতে মোট ব্যাঘ্র প্রকল্পের সংখ্যা – 48 টি ।
11. জীববৈচিত্র্যের বিচারে পৃথিবীতে ভারতের স্থান – দ্বাদশ ।
12. পৃথিবীর বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বনাঞ্চল অবস্থিত – সুন্দরবনে ।
13. ভারতে সপুষ্পক উদ্ভিদ প্রজাতি পাওয়া যায় – প্রায় 15 হাজার ।
14. ভারতে বিপন্ন স্তন্যপায়ী প্রাণী – প্রজাতির সংখ্যা – 39 টি ।
15. কানহা জাতীয় উদ্যান অবস্থিত – মধ্যপ্রদেশে ।
16. রামসার সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় – 1971 সালে ।
17. রিও ডি জেনিরোতে বসুন্ধরা সম্মেলন হয় – 1992 সালে ।
18. UNESCO মানুষ ও জীবমণ্ডল কর্মসূচি গ্রহণ করে – 1971 সালে ।
19. মেগাবায়োডাইভারসিটি পরিভাষাটি ব্যবহৃত হয় – স্মিথসোনিয়ার সম্মেলন ।
20. ‘ জীবসম্পর্কিত বৈচিত্র্য ‘ পরিভাষাটি প্রথম ব্যবহার করেন – টমাস ই লাভজয় ।

Rainbow Revolution

1. সবুজ বিপ্লব – খাদ্যশস্য উৎপাদন ।
2. শ্বেত বিপ্লব – দুধ উৎপাদন ।
3. হলুদ বিপ্লব – তৈলবীজ উৎপাদন ।
4. নীল বিপ্লব – মৎস্য উৎপাদন ।
5. লাল বিপ্লব – মাংস এবং টম্যাটো উৎপাদন ।
6. স্বর্ণালী বিপ্লব – ফল (আপেল) উৎপাদন ।
7. ধূসর বিপ্লব – সার বিপ্লব ।
8. কৃষ্ণ বিপ্লব – পেট্রোলিয়াম উৎপাদন ।
9. রজত বিপ্লব – ডিম বিপ্লব ।
10. গোল বিপ্লব – আলু উৎপাদন ।
11. গোলাপি বিপ্লব – চিংড়ি উৎপাদন ।
12. বাদামি বিপ্লব – কফি উৎপাদন ।

SUPER FAST SAQ

1. জনসংখ্যা বিবর্তন তত্ত্বের দুটি মূল উপাদান হল-
উঃ জন্মহার ও মৃত্যুহার।
2 . MAB(MAN AND THE BIOSPHERE) প্রোগ্রামটি গঠিত হয়-
উঃ 1971 সালে।
2. সরিস্কা ব্যাঘ্র প্রকল্প টি অবস্থিত –
উঃ রাজস্থানে।
3. ‘Bio-concentration Factor’-এর মাধ্যমে পরিমাপ করা হয় –
উঃ জলদূষণের।
4. দামোদর নদ কোন নদীর সঙ্গে মিশেছে?
উঃ হুগলি নদী।
5. জাস্কর রেঞ্জের সর্বোচ্চ শৃঙ্গের নাম কি?
উঃ কামেট।
6.জে. কে. নগর কোন শিল্পের জন্য বিখ্যাত?
উঃ এলুমিনিয়াম(AL).
7. কার্স্ট অঞ্চলের ক্ষয়চক্রের প্রবক্তা –
উঃ ভূ-বিজ্ঞানী Beede ও Civijic।
8. প্রথম “বার্খান” শব্দটি ব্যবহার করেন-
উঃ মরু পর্যটক হ্যাডিন।
9. ভারতের ক্ষেত্রে কোন অভিক্ষেপ উপযুক্ত?
উঃ সিনুসইডাল।
10. RADER এর পুরোনাম-
উঃ Radio Detection and Ranging।
11. Sinusodial projection-টিকেকে কত সালে তৈরি করেন?
উঃ 1923সালে J.P. Goode।
12. ভূ-পৃষ্ঠের মহাবৃত্তের ছেদরেখাকে কি বলে?
উঃ Geodesic Line।
13. Biotope হল-
উঃ সমপ্রকৃতির প্রাকৃতিক পরিবেশের মধ্যে বসবাসকারী জীব সম্প্রদায়ের পরিবেশ।
14. 1 Micrometer তে হল-
উঃ 0.000001 মিটার।
15. মৃত্তিকার সোডিয়াম সমৃদ্ধ স্তরকে বলা হয়-
উঃ Natric ।

-সৌরভ সরকার ও কমল হালদার ।।

কপিরাইট: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া ।। 

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 10
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    10
    Shares

Leave a Reply

One thought on “SLST GEOGRAPHY SAQ-3

  • April 11, 2018 at 4:26 pm
    Permalink

    Khub vlo ..
    Carry on.but 1ta kotha aiguli download kora gele aro vlo hoto

    Reply

মন্তব্য করুন

error: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত