শহরের সাতকাহন।। আজ ইংল্যান্ডের লন্ডন (London City)

টেমস নদীর তীরে অবস্থিত লন্ডন শহরটি ইংল্যান্ডের রাজধানী এবং সর্বাধিক জনবহুল শহর। রোমানদের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যের এই শহরটির রোমান ভাষায় নামকরণ হয়েছিল ‘লন্ডিনিয়াম’। উন্নত বিমানবন্দর ব্যবস্থা, সমৃদ্ধ অর্থনীতি, উন্নত প্রযুক্তি শহরটিকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য শক্তিশালী করে তুলেছে। “London Underground” বিশ্বের সবথেকে পুরোনো পাতালরেল চলাচল ব্যবস্থা।

চিত্রঃ টেমস নদীর তীরে অবস্থিত লন্ডন

কিউ গার্ডেন একটি বিশ্ববিখ্যাত উদ্যান যা ১৮৪০ সালে স্থাপিত হয়। এখানেই রাজকীয় স্থাপত্য ওয়েস্টমিনস্টার প্রসাদ অবস্থিত।

চিত্রঃ ওয়েস্টমিনস্টার প্রসাদ

“রয়্যাল অবজারভেটরি অফ গ্রিনিচ” টেমস নদীর তীরে গ্রিনিচ পার্কে অবস্থিত যেখানে মূলমধ্যরেখার মান শূন্য ডিগ্রি।

ব্রিটিশ রাজাদের সরকারি কাজকর্মের জন্য নির্মিত বাকিংহাম প্যালেস, পিকাডেলি সার্কাস, সেন্ট পলস, ক্যাথিড্রাল চার্চ, লন্ডন ব্রিজ “বিগবেন” নামক Clock-Tower (যা 2012-তে “এলিজাবেথ টাওয়ার “ নাম করা হয়) পৃথিবী বিখ্যাত।

Image: London Eye

টেমস নদীর তীরে ১৩৫ মিটার ব্যাসের একটি ঘূর্ণায়মান চাকা ১৯৯৯ সালে উদ্বোধন করা হয়েছে যা “London Eye” নামে পরিচিত । কিমি/ঘন্টা বেগে এক পাক সম্পূর্ণ করতে চাকাটি সময় নেয় ৩০ মিনিট। এছাড়াও ব্রিটিশ মিউজিয়াম, ব্রিটিশ লাইব্রেরি, Tate Modern Art Gallery বিখ্যাত ।

আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ সময় করে আমাদের পোস্টটি পড়ার জন্য। এই ভাবেই মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া এর পাশে থাকুন।

আরও দেখুন “ভূগোলের জিকে ভাণ্ডার।। প্রতিদিন GK-র ২০টি প্রশ্ন ও উত্তর।। পর্ব-৬”

Content Protection by DMCA.com
এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 58
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    58
    Shares

মন্তব্য করুন

error: মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত